নোটিশ

এতদ্বারা আমনুরা হযরত বুলন্দ শাহ মহা বিদ্যালয়ের ২০২০ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, বোর্ড কর্তৃক ফরম ফিলাপ ও সেন্টার ফি এর টাকা আগামী ২৬/০৮/২০২১ ইং তারিখ রোজ বৃহস্পতিবার সকাল 10:30 হইতে কলেজ অফিস কক্ষে ফেরত দেওয়া হবে। এই মর্মে সকল ছাত্রছাত্রীকে নিজ নিজ এডমিড কার্ড ও রেজিস্ট্রেশন কার্ড নিয়ে এসে টাকা ফেরত নিতে হবে। ছাত্র-ছাত্রী ছাড়া অন্য কারও হাতে টাকা দেওয়া হইবে না।

আদেশক্রমে
মোঃ মাইনুল হাসান
অধ্যক্ষ
আমনুরা হযরত বুলন্দ শাহ মহাবিদ্যালয়

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উদযাপন।

 

 

 

 

 

আজ ১৫ আগস্ট,  জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদতবার্ষিকী। এক নৃশংস ও মর্মস্পর্শী হত্যাকাণ্ডের দিন আজ। ১৯৭৫ সালের এই দিনে কিছুসংখ্যক বিপথগামী সেনাবাহিনীর সদস্য বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার মাধ্যমে ইতিহাসের এক কালো অধ্যায় রচনা করে। তবে সেই সময় বিদেশে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর দুই মেয়ে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। সারা দেশের ন্যায় জাতীয় শোক দিবসের অংশ হিসেবে আমনুরা হযরত বুলন্দ শাহ্ মহাবিদ্যালয় সামাজিক দুরত্ব মেনে যথাযথ মর্যাদায় দিবসটি পালন করে। কালো পতাকা উত্তোলন, জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখে কালো ব্যাচ ধারণ করেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবারের সকল সদস্য মংগল ও বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়

ঐতিহাসিক দিবস ৭ ই মার্চ উদযাপন

বাংলাদেশের ইতিহাসে অনেকগুলো ঐতিহাসিক দিন আছে, যা আমাদের মনে রাখতে হবে। তাদের মধ্যে ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ একটি দিন। এই দিনে ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার জীবনের শ্রেষ্ঠ ভাষণটি দিয়েছিলেন। যা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ভাষণ গুলির একটি। এদেশের মানুষকে পরাধীনতার শিকল থেকে মুক্তির লক্ষ্যে ১০ লক্ষাধিক লোকের সামনে পাকিস্তানি দস্যুদের কামান-বন্দুক-মেশিনগানের হুমকির মুখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বজ্রকণ্ঠে ঘোষণা করেন—‘এবারের সংগ্রাম, আমাদের মুক্তির সংগ্রাম। এবারের সংগ্রাম, স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ সারাদেশে এই দিনটি ঐতিহাসিক দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে যার অংশ হিসাবে আমনুরা হযরত বুলন্দ শাহ্ মহাবিদ্যালয় এর শিক্ষক-কর্মচারীরাও দিনটি পালন করেন।

 

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

আজ একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। দিবসটি উপলক্ষে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ন্যায়  আমনুরা হযরত বুলন্দ শাহ মহাবিদ্যালয় এর সকল শিক্ষক কর্মচারী উপস্থিত থেকে ভাষা শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দিবসটি উদযাপন করেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল

 

আজ ঐতিহাসিক ১০ জানুয়ারি।  জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। ১৯৭২ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানের বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়ে  স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের মাটিতে ফিরে আসেন। মহান এই নেতার প্রত্যাবর্তনে স্বাধীনতা সংগ্রামে বিজয়ে জাতি পূর্ণতা লাভ করেন।  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাঁর এই স্বদেশ প্রত্যাবর্তনকে ‘অন্ধকার হতে আলোর পথে যাত্রা’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আমনুরা হযরত বুলন্দ শাহ্ মহাবিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শিক্ষক-কর্মচারীদের নিয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্্

মহান বিজয় দিবস ২০২০ উদযাপন

মহান বিজয় দিবস উদযাপন। ১৯৭১ সালে পাকিস্তানের শাসকদের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে আজকের এই দিনে বাংলাদেশের বিজয় অর্জিত হয় এবং বিশ্ব মানচিত্রে বাংলাদেশ নামে একটি দেশ জায়গা দখল করে নেই। সেই বিজয় দিবস স্মরণে করোনাভাইরাসের মহামারীর কারণে স্বল্প পরিসরে দিবসটি উদযাপন করা হয়। পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে রচনা প্রতিযোগিতার মধ্যে পুরস্কার বিতরণের পর আলোচনা সভা ও মুক্তিযুদ্ধে নিহত বীরমক্তিযোদ্ধাদের রুহের মাগফেরাত কামনা ও সকলের সুস্বাস্থ্য কামনা করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি করা হয় ‌।

অনলাইন ক্লাস সম্পর্কে

বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনাভাইরাস এর প্রভাব বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ ২০২০ প্রথম শনাক্ত হওয়ার পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনায় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়, পরিস্থিতি বিবেচনা করে ধাপে ধাপে এই বন্ধের মেয়াদ বাড়ানো হয়। তবে, শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার সাথে সম্পৃক্ত রাখার নিমিত্তে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশক্রমে বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো অনলাইনে তাদের পাঠদান কার্যক্রম শুরু করে যা এখনও চলমান। এরই ধারাবাহিকতায় আমনুরা হযরত বুলন্দ শাহ মহাবিদ্যালয় গত মে ২০২০ ইং থেকে অনলাইন ক্লাস পরিচালনা করে আসছে। এই প্রতিষ্ঠান ক্লাসগুলো প্রচারিত হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এর “AMNURA HAZROR BULANDA SHAH COLLEGE “নামে গ্রুপে । কখনো লাইভে ক্লাশ নেওয়া হয় আবার কখনো ক্লাস ভিডিও করে আপলোড করা হয়।

ক্লাস রেকর্ড করার ক্ষেত্রে শিক্ষকদের পূর্ব অভিজ্ঞতা না থাকায় প্রথমদিকে কিছুটা সমস্যাবোধ করলেও ইতোমধ্যে সেটি তারা কাটিয়ে উঠেছেন। তবুও কিছু সমস্যার মুখোমুখি হতে হচ্ছে। যেমন, ক্লাসরুমে শিক্ষার্থীদের সাথে সরাসরি সংযোগ না ঘটা, অনলাইনে কনটেন্ট আপলোড করতে না পারা।  আরেকটি সমস্যা হলো- শিক্ষার্থীগণ ঠিকমতো ক্লাসগুলো দেখছে কিনা নিশ্চিত করা।

তারপরেও তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে প্রাথমিক দুর্বলতাগুলো কাটিয়ে বাংলাদেশের ই-লার্নিং কার্যক্রম ভবিষ্যতের ক্লাসরুমভিত্তিক শিক্ষা ব্যবস্থার পাশাপাশি কার্যকরভাবেই চালু থাকবে বলেই মনে করি।